,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

আজকের চট্রগ্রাম

দ্রুত এগিয়ে চলছে দোহাজারী-কক্সবাজার রেলপথ নির্মান কাজ: ঢাকার সাথে যোগাযোগ ২০২২ সালে
বশির আলমামুন,চট্টগ্রাম:
করোনার ক্রান্তি কালেও থেমে নাই স্বপ্নের ‘দোহাজারি-কক্সবাজার-ঘুমধুম’ রেললাইন স্থাপনের নির্মান কাজ। করোনা সহ নানা কারণে দেশের বড় বড় মেগা প্রকল্প গুলোর নির্মাণ কাজ প্রায় বছরখানেক বন্ধ থাকলে ও থেমে থাকেনি এ প্রকল্পের কাজ। এর পরও দ্রুত এগোচ্ছে ‘দোহাজারি-কক্সবাজার-ঘুমধুম’ রেললাইন স্থাপনের কাজ। ইতিমধ্যে রেল লাইনটির কক্সবাজার অংশের প্রায় ছয় কিলোমিটার এলাকা জুড়ে রেলট্র্যাক বসানোর কাজ সম্পন্ন হয়েছে।
এছাড়াও পুরোদমে চলছে সাঙ্গু, মাতামহুরী ও বাঁকখালী নদীর উপর রেল সেতু নির্মান কাজ। চলছে আইকনিক স্টেশন, ছোট-বড় সেতু, কালভার্ট, লেভেল ক্রসিং ও হাইওয়ে ক্রসিংয়ের কাজও।
প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, এ প্রকল্পের ১২৮ কিলোমিটার রেলপথে স্টেশন হবে ৯টি। পর্যটন নগরী কক্সবাজারে হচ্ছে ঝিনুক আকৃতির আইকনিক স্টেশন। সাঙ্গু, মাতামুহুরী ও বাঁকখালী নদীর ওপর হচ্ছে তিনটি বড় সেতু। সাতকানিয়ার কেঁওচিয়ায় নির্মাণ হচ্ছে উড়াল সেতু। তারা জানান করোনার প্রথম ঢেউয়ে সংক্রমণ এড়াতে কাজ বন্ধ রাখা হয়েছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়কালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রমিকদের প্রকল্প এলাকায় রেখেই কাজ এগিয়ে নেওয়া হচ্ছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে রামুর পানিরছড়া বাজার হয়ে কক্সবাজারমুখী রেলপথ স্থাপনের কাজ শুর“ হয়েছে। দোহাজারীতে তিন কিলোমিটার সিগন্যাল তার বসানো সম্পন্ন হয়েছে। এরই মধ্যে কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলায় তিন কিলোমিটার ও রামু উপজেলার পানিরছড়ায় দুই কিলোমিটার রেলট্র্যাক স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। যা এখন পুরোপুরি দৃশ্যমান।
প্রকল্পের কক্সবাজার অংশের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের কর্মকর্তা ইঞ্জিনিয়ার ইকবাল পাটোয়ারি বলেন, সড়কের ৫৭ কিলোমিটার বাস্তবায়নের দায়িত্ব পেয়েছি আমরা। ইতিমধ্যে অবকাঠামো নির্মাণের কাজ প্রায় ৮০ শতাংশ শেষ হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি ও বর্ষা মৌসুমের প্রতিকূলতার মধ্যেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা যাবে বলে আশা করছি। ইতিমধ্যে ঈদগাঁওতে তিন কিলোমিটার, রামুর পানিরছড়ায় দুই কিলোমিটার রেল ট্র্যাক বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। কক্সবাজার সদর ও চকরিয়াতে পুরোদমে কাজ চলছে।
দোহাজারী-কক্সবাজার রেল লাইন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মফিজুর রহমান বলেন, ২০২২ সালের মধ্যে প্রকল্পের দোহাজারী-কক্সবাজার অংশের শতভাগ কাজ শেষ করা সম্ভব হবে বলে আমরা আশাবাদী। পর্যটননগরীর সঙ্গে রাজধানীর রেল যোগাযোগ ২০২২ সালের মধ্যে স্থাপিত হবে।
কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী খোকা বলেন, রেল চালু হলে শুধু যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হবে, তা নয়। এ অঞ্চলের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড পালটে যাবে। কক্সবাজারে
জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, কক্সবাজারবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হতে চলছে। প্রকল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ২০২২ সালে কাজ শেষ হবে। এটি প্রধানমন্ত্রী অগ্রাধিকার প্রকল্প। দ্রুত কাজ শেষ করতে যখন যা সহযোগিতা প্রয়োজন তা করছি।
উল্লেখ্য, ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১৮ সালে প্রথম দিকে শুরু হয় দোহাজারি থেকে রামু হয়ে কক্সবাজার এবং রামু হতে ঘুমধুম পর্যন্ত রেললাইন স্থাপনের কাজ। বর্তমানে তা দ্রুত গতিতে চলমান রয়েছে।

চমেকের নালায় অজ্ঞাত দুই নবজাতকের মরদেহ!
চট্টগ্রাম ব্যুরো:
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) পাশে নালা থেকে দুই নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। ১৪ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০টার দিকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়।
চমেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নুরুল আলম আশেক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ‘সকাল ১০টার দিকে ময়লা পরিষ্কারের সময় মেডিকেলের পাশের নালা থেকে দুই নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে মরদেহ দুটি হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।’

কর্ণফুলীতে তেল শুক্কুর ও তিন ছেলের বিরুদ্ধে শিক্ষিকাকে নির্যাতনের অভিযোগ
চট্টগ্রাম ব্যুরো: কর্ণফুলীতে নানান অপকর্ম নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সুমি আক্তার নামে এক স্কুল শিক্ষিকাকে নির্যাতন ও পরিবারে উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ উঠেছে। কর্ণফুলী নদীতে তেল চোরাকারবারিদের মূলহোতা শুক্কুর ও তার তিন ছেলের বিরুদ্ধেএ অভিযোগ করেন ওই স্কুল শিক্ষিকা। স্থানীয় মরিয়ম আশ্রম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা সুমি আকতারের অভিযোগ, শুক্কুর ও তার ছেলেরা মনে করছে পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদগুলো আমরাই করিয়েছি। সেকারণে আমাদের ওপর হামলা চালায় তারা। ১৪ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
লিখিত বক্তব্যে তিনি অভিযোগ করে বলেন, আব্দুস শুকুর প্রকাশ তেল চোর শুক্কুর দীর্ঘদিন ধরে কর্ণফুলী নদীর বহির্নোঙ্গরে আসা-যাওয়ার তেলবাহী জাহাজ থেকে অবৈধ তেলের কারবার করে আসছে। এছাড়াও সরকার অনুমোদিত ডিলার পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা অয়েল কোম্পানির তেল সরবরাহের জাহাজ থেকে তেল চুরি করে কালোবাজারে বিক্রি করে আসছে।
তিনি আরও বলেন, তার তিন ছেলে ইয়াবা মনির, দেলোয়ার হোসেন এবং কিশোর গ্যাং লিডার হৃদয়ের বিরুদ্ধেও মাদক কারবারী ও ভুমি দখলের বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। আর এসব অপকর্মের সংবাদ বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়। কিন্তু এসব সংবাদ বা পত্রিকার সাথে আমাদের কোন সর্ম্পক নেই বা আমরা জানতামও না। কিন্ত এসব সংবাদ প্রকাশের পিছনে আমি ও আমার পরিবার জড়িত থাকায় অভিযোগ এনে গত ৯ সেপ্টেম্বর ধারালো অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে আকস্মিকভাবে আমার পরিবারের উপর হামলা করে সন্ত্রাসীরা।
তিনি বলেন, হামলায় তারা আমার ডান হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে, আমার বৃদ্ধ পিতার বাম হাতে ছুরি দিয়ে তিনটি কোপ দেয় এবং মায়ের চুলের মুঠি ধরে লাথি ও খিল ঘুষি মেরে মারাত্মকভাবে আহত করে। আমার বড় ভাইকেও লোহার রড এবং লাঠি দিয়ে আঘাত করে। কিন্ত এ হামলার বিষয়ে থানা পুলিশসহ প্রশাসনকে জানালেও তারা কোন মামলা বা ব্যবস্থা নেয়নি। আর তাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় তারা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে।
এসময় ভুক্তভোগী পরিবারের অনান্য সদস্যরা তাদের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে বলেন, আবদুস শুক্কুর ও তার ছেলেদের ভয়ে তারা নিজ বাড়িতে ঢুকতে পারছেনা। তাই এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। প্রশানের কাছে নির্যাতনকারী দোষী ব্যক্তিদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য মো. রুবেল, মো. ইলিয়াস, রোজী আক্তার ও জরিনা খাতুন।

তামিম ইকবালকে বিশ্বকাপ থেকে বাদ দেয়ায় চট্টগ্রামে মানববন্ধন
চট্টগ্রাম ব্যুরো:
চট্টগ্রামের ছেলে ক্রিকেটার তামিম ইকবাল খানকে আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ দেওয়ায় মানববন্ধন করেছে তামিম ভক্তরা। মানববন্ধনে ক্র্রিকেট প্রেমী বিভিন্ন শ্রেণীপেশার তামিমভক্ত উপস্থিত ছিলেন। ১৪ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) সকালে নগরীর কাজীর দেউড়ির আউটার স্টেডিয়ামে ক্রিকেট প্রেমী চট্টগ্রামবাসীর ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ২৩ জনের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বিসিবি। কিন্তু এ স্কোয়াডে এক অজানা কারণে চট্টগ্রামের বাসিন্দা ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালকে রাখা হয় নি। তামিম ইকবালের মত একজন ক্রিকেটারকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডের বাইরে রাখায় আমরা চট্টগ্রামের ক্রিকেট প্রেমীরা খুবই হতাশ। আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপ স্কোয়াড বোর্ড যেন তামিম ইকবালের সাথে সমঝোতা করে তাকে দ্রুত স্কোয়াডে রাখে তার আহ্বান জানান মানববন্ধনের বক্তারা।

সীতাকুন্ডে শিপ ইয়ার্ডে গ্যাস সিলিন্ডারের আঘাতে ব্যবসায়ী নিহত
সীতাকুন্ডে পুরাতন জাহাজ ভাঙার কারখানায় স্ক্র্যাপ লোহা কিনতে গিয়ে গ্যাস সিলিন্ডারের ধাক্কায় মো. আলী নাজিম (৪৩) নামের এক ব্যবসায়ী মারা গেছে। ১৪ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার সকাল ১০টায় উপজেলার বাশঁবাড়িয়া ইউনিয়নের মাস্টার কাসেমের মালিকানাধীন ‘মাদার স্টিল’ নামক ইয়ার্ডে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নাজিম উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের কাজী পাড়ার মো. জানে আলমের ছেলে।
সীতাকুন্ড থানার এসআই ফারুক হোসেন জানান, সকাল ১০টার দিকে স্ক্র্যাপ লোহা কিনতে মাদার স্টিলের ইয়াের্ড যান মো. আলী নাজিম। এ সময় বোতল সুপারভাইজারের নেতৃত্বে মাদার স্টিলের শ্রমিকরা ট্রাক থেকে গ্যাসের বোতল (সিলিন্ডার) নামাচ্ছিলেন। তারা ট্রাকের উপর থেকে জোরে-জোরে বোতলগুলো নিচে ফেলতে থাকেন। তখন একটি বোতলের মুখ খুলে গ্যাস বের হতে থাকলে বোতলটি ঘুরতে থাকে। এক পর্যায়ে গ্যাসের সিলিন্ডার বহনকারী ট্রাক থেকে প্রায় ১৫০ ফুট দূরে দাঁড়িয়ে থাকা মো. আলীর মুখে গিয়ে আঘাত করে। বোতলের প্রচন্ড আঘাতে ব্যবসায়ী মো. আলীর মুখ থেঁতলে গিয়ে গুরুতর আহত হন। এ সময় ইয়ার্ডের শ্রমিকরা তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাশ ময়না তদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-৫/১, (৪র্থ তলা) ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : বিএনএস সেন্টার (৯তলা), প্লট-৮৭, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited