,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

ডেঙ্গুতে মৃত্যু-আক্রান্ত বাড়ল

সিএনআই নিউজ :

দেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতি সহনীয় বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বুধবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯৫ জন রোগী ভর্তি হয়েছে হাসপাতালে। আর ঢাকার বাইরে রোগীর সংখ্যা ৪৫। সব মিলিয়ে সরকারি–বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ১১৫৬ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছে ৪৫ জন।

ঢাকায় ৪১টি হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছে ১০১৫ জন, ঢাকার বাইরে হাসপাতালে ভর্তি আছে ১৪১ জন। 
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য তথ্য ইউনিটের কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ কামরুল কিবরিয়া (সহকারী পরিচালক) এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।
এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি ২০১৯ সালের তুলনায় একটি সহনীয় অবস্থায় আছে। কিন্তু এটিকে আমরা আরও নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পারি, যদি প্রত্যেকে নিজ নিজ কাজগুলো যথাসময়ে শেষ করি। এডিসের বংশ বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হলে ডেঙ্গু পরিস্থিতি আরও ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে।

নাজমুল ইসলাম আরো জানান, আগস্ট মাসে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক ডেঙ্গু রোগী ছিল, যা ৭ হাজার ৬৯৮ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। জুলাই মাসে তা ছিল ২ হাজার ২৮৬ জন। ডেঙ্গু কমাতে উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা গেলে রোগী আরও কমবে। নিজ বাসগৃহ, ফুলের টব, জমা পানি তিন দিনের মধ্যে ফেলে দিতে হবে। জমে থাকা পানি রাখা যাবে না, মশারি ব্যবহার করতে হবে।

জ্বর থাকলে করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষা করারও পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
উপসর্গ দেখামাত্রই চিকিৎসা নিতে হবে। তাহলে অনেক ক্ষেত্রেই বিরূপ পরিস্থিতি এড়ানো সম্ভব। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলেছে, স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চললে এ পরিস্থিতি মোকাবিলা করে স্বাভাবিক জীবনের কাছাকাছি যাওয়া যাবে।
এদিকে, বুধবার রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, তাদের হিমশিম অবস্থার কথা। জ্বর অবস্থায় আসছে, অনেকের অবস্থা প্রেসার খুব কম নিয়ে আসছেন। রোগীর চাপ আছে। আর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আগামী ১৫ দিন বাড়তে পারে এডিস মশা।

কিটতত্ত্ববিদ খবিরুল বাশার সময় সংবাদকে বলেন, আগামী ১৫ দিন পর্যন্ত ডেঙ্গু খুব বেশি কমে আসবে বলে আমাদের প্রেডিকশন মডেল বলছে না। সিটি করপোরেশনের মশক নিধন কার্যক্রম ও জনগণ দ্বারা মশক নিধন কার্যক্রম এই সবগুলো প্রক্রিয়াই একসঙ্গে চলমান থাকতে হবে। যদি এটিকে আমরা চলমান না রাখি তাহলে ডেঙ্গু আরও বেড়েও যেতে পারে। বিশেষায়িত হাসপাতালে ডেঙ্গু চিকিৎসার জন্য সেখানে উপযুক্ত চিকিৎসক নিয়োগ, আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা রাখা উচিত।

গত ২৪ ঘণ্টায় শুধুই মিটফোর্ড হাসপাতালে ১৮৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন। সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত ১০ হাজার ছাড়িয়েছে।

রাজধানীতে বেড়েই চলেছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। চলতি বছর আগস্টেই সর্বোচ্চ সাড়ে সাত হাজার আক্রান্ত হয়েছেন। ডেঙ্গুর নতুন ধরন ডেনভি থ্রি’তে দ্রুত খারাপ হচ্ছে রোগীর অবস্থা। চিকিৎসকরা বলছেন, এ ধরনে আক্রান্তদের প্লেটলেট অনেক কমে যাওয়ার পাশাপাশি রক্তক্ষরণ হওয়ায় দুর্বল হয়ে পড়ছেন রোগীরা।
এর আগে ঢাকা শিশু হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আর্শিয়া জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের রক্তের চাপ, প্রসাব কমে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আরও নানা ধরনের জটিলতা দেখা দিচ্ছে। ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর চাপ অনেক। ২০১৯ সালের তুলনায় এবছর ডেঙ্গুর ভয়াবহতা আরও মারাত্মক বলেও জানান এ চিকিৎসক। বলেন, ডেঙ্গুতে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতেই রয়েছে শিশুরা।
ঢাকা শিশু হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. নুরুজ্জামান বলেন, জুলাই মাসের তুলনায় আগস্ট মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণের কাছাকাছি। বহির্বিভাগ ও জরুরি বিভাগে প্রতিদিন প্রায় ৪০ থেকে ৫০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী আমরা পাচ্ছি। ডেঙ্গুর লক্ষণগুলোর মধ্যে জ্বর থাকবে, সেই সঙ্গে বমি ও কালো পায়খানা শুরু হবে, পেটে ব্যথা থাকবে। এধরনের লক্ষণ দেখা দিয়ে দ্রুত রোগীকে নিয়ে হাসপাতালে আসতে হবে।
নগরবাসীকে সচেতন থাকার তাগিদ দেন চিকিৎসকরা।

Leave a Reply

প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-৫/১, (৪র্থ তলা) ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : বিএনএস সেন্টার (৯তলা), প্লট-৮৭, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited