,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

বিস্ফোরণে যেভাবে অল্পের জন্য বাঁচলেন ১৬০ ভারতীয়

কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে দুটি বিস্ফোরণ ঘটেছে। এতে এখন পর্যন্ত ৬০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে চারজন মার্কিন সেনা রয়েছে। নিহতদের মধ্যে বিদেশি নাগরিক ও শিশু বেশি।

কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষমাণ যাত্রীদের মধ্যে কয়েকজন ভারতীয় ছিল। শেষ পর্যন্ত মধ্যরাতের বেশকিছু পরে তারা জানা যায়, ১৬০ জন ভারতীয় যাদের মধ্যে ১৫ জন হিন্দু এবং ১৪৫ জন শিখ, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে একটি গুরুদ্বারে আশ্রয় নেওয়ায় বেঁচে যান।


দিল্লি শিখ গুরুদ্বারা ম্যানেজমেন্ট কমিটির প্রেসিডেন্ট মজিন্দর সিং বৃহস্পতিবার জানান, সামান্যের জন্যই ভারতীয়দের পুরো দলটি রক্ষা পেয়েছে।

তিনি টুইটে জানান, যেখানে আজকে কাবুল বিস্ফোরণ হল, একদম সেখানেই একদিন আগে ভারতীয়রা অবস্থান করছিলেন।

তিনি বলেন, আমরা সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানাই আমাদের এই ভয়াবহ বোমা হামলা থেকে রক্ষা করার জন্য।

এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সারা দেশে পতাকা অর্ধনমিত ও কিছু সময়ের জন্য নীরবতা পালন করে হোয়াইট হাউসে উপস্থিতরা। এরপর দুঃখভারাক্রান্ত বাইডেন বলেন, ‘কে এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা অজানা নয়। আমরাও প্রতিক্রিয়াশীল হব, যখন আমাদের সময় আসবে। ক্ষমা করব না, আমরা এই হামলার কথা ভুলেও যাব না। হামলাকারীদের অবশ্যই খুঁজে বের করব এবং কঠোর প্রতিশোধ নেব।’


মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘জঙ্গিরা জিতবে না, এই লড়াইয়ে আমরাই জিতব। কারণ আমরা তাদের ভয় পাই না। ওরা আমাদের কিছুই করতে পারবে না। এর আগেই আমরা সেনাদের সেখান থেকে সরিয়ে আনব।’
বাইডেনের এই প্রতিশোধ নেওয়ার কথা জানানোর আগে সৈন্য সরিয়ে নেওয়া যিনি দেখভাল করছেন সেই গেন ম্যাককেঞ্জি বলেন, ‘আফগান ও মার্কিন সেনা নিহতের ঘটনায় আমরা শোকাহত। দ্রুতই আমরা সেনা সরিয়ে নিচ্ছি। বৃহস্পতিবার সরানোর কথা ছিল প্রায় ৫০০০ সৈন্য।’

কথা রয়েছে ৩১ আগস্ট প্রায় সব মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছাড়বে। তার আগে মার্কিনিদের মতো অনেক আফগানিস্তানিও দেশ ছাড়তে চান। এরই মধ্যে লোকজনকে সরিয়ে নিতে ব্যাপক কর্মযজ্ঞের মধ্যেই সম্ভাব্য হামলার সতর্কতা জারি করেছিল পশ্চিমা দেশগুলো। বিমানবন্দর এড়িয়ে চলতে নাগরিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। এক কর্মকর্তা বলেন, সেখানে আত্মঘাতী হামলার ঝুঁকি রয়েছে। এর আগে কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় সেখানে না যেতে নাগরিকদের প্রতি সতর্কতা জারি করে যুক্তরাষ্ট্রসহ তাদের মিত্রদেশগুলো। জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট হামলা চালানোর হুমকি দেওয়ায় এই সতর্কতা জারি করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের হিসাব মতে, ১৪ আগস্ট থেকে এখন পর্যন্ত ৮২ হাজারের বেশি মার্কিন ও আফগান নাগরিক কাবুল ছাড়তে সক্ষম হয়েছে। এখনো আফগানিস্তান ছাড়ার অপেক্ষায় আছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। যতই দিন গড়াচ্ছে ততই আফগানদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। উত্তাল আফগানিস্তান থেকে নিজেদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেওয়া অব্যাহত রেখেছে মেক্সিকো, লিথুয়ানিয়াসহ বিভিন্ন দেশ।

Leave a Reply

প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-৫/১, (৪র্থ তলা) ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : বিএনএস সেন্টার (৯তলা), প্লট-৮৭, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited