,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

আজ সিএনআই নিউজের প্রধান সম্পাদকের জন্মদিন

আবিদ হাসান নাফি:

তোফায়েল হোসেন তোফাসানি’র ৫০তম জন্মদিন আজ ২৬ এপ্রিল। ১৯৭১ সালের ২৬ এপ্রিল মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলা সদরের সাটুরিয়া বাজার এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

সিএনআই নিউজ ও বার্তা বিচিত্রার প্রধান সম্পাদক তোফায়েল হোসেন তোফাসানি’র শুভ জন্মদিনে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আমরা গর্বিত তার মত একজন অভিভাবক পেয়ে।

জাতীয় দৈনিক ভোরের পাতার প্রতিবেদক ও একাধিক প্রতিষ্ঠানে যুক্ত সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল হোসেন তোফাসানি’র জন্মদিনে দোয়া, ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন অনেকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার দ্বারা সুবিধাভোগী মানুষ, সহকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা অজস্র শুভ কামনা ও প্রীতি জানিয়েছেন তাঁকে।

আনোয়ার হোসেন মুন্সী ও টুনকি বেগম দম্পতির একমাত্র সন্তান তোফায়েল হোসেন তোফা সানি। বাবা মা উভয়েই নিয়তির ডাকে সাড়া দিয়ে পরপারে পাড়ি দিয়েছেন। তাঁর পিতা মরহুম আনোয়ার হোসেন মুন্সী ছিলেন ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের নেতা, একজন জনপ্রতিনিধি, সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী। প্রয়াত মা টুনকি বেগম ছিলেন গৃহিণী ।

মা-বাবার একমাত্র সন্তান তোফা সানি ছোট বেলা থেকেই সাংস্কৃতিক পরিবেশে বেড়ে ওঠেন। পঞ্চম শ্রেণিতে অধ্যয়নকালে তিনি তাঁর প্রথম কবিতা ‘আহা কত ভাল মানুষ’ লিখে আলোচনায় আসেন এবং সে সময় এলাকায় বিভিন্ন নাটকে অভিনয় শুরু করেছিলেন। এর আগেও তিনি ওস্তাদ আমির হামজার কাছ থেকে সংগীতের পাঠ গ্রহণ শুরু করেছিলেন। তার পর থেকে তোফাসানি বিভিন্ন মঞ্চে গান করে হাজারো দর্শকের মন জয় করেছেন।

পশ্চিম কাওনারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষ করে তিনি সাটুরিয়া আদর্শ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে স্বাক্ষর প্রতিভা রেখে গেছেন। তিনি ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ধারাবাহিক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেছিলেন এবং এতে প্রতি বছর চ্যাম্পিয়ন হন।

ষষ্ঠ শ্রেণিতে অধ্যয়নকালে তিনি রেডক্রস সোসাইটির সদস্য হিসাবে শিবিরে ক্যাম্পে অংশ নেওয়া শুরু করেছিলেন। অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নকালে তিনি নিজেকে দক্ষ বয় স্কাউট হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন এবং চতুর্থ স্কাউট জাম্বুরীতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হিসাবে তিনি বিশ্বের মধ্যে প্রথম পদক পেয়েছিলেন। উচ্চ বিদ্যালয়ে থাকাকালীন তিনি নিজেকে একজন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ও অভিনেতা হিসাবে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তোফাসানি দেশের বিভিন্ন স্থানে মঞ্চে গান, পরিবেশনা এবং বাদ্যযন্ত্র পরিবেশন করেছেন। ছোট থেকেই তিনি প্লে হাউজের সদস্য ছিলেন এবং দেয়াল পত্রিকা সম্পাদনা করেছিলেন। দক্ষ চিত্রশিল্পী হিসাবে তিনি আত্মপ্রকাশ করেছিলেন।

সাটুরিয়ায় দারগ্রাম ভিকু মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজে এইচএসসির প্রথম বর্ষে, তিনি তোফা’স ব্যান্ড নামে একটি ব্যান্ড গঠন করেছিলেন এবং ১৯৮৭ সালে ঝালক সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী গঠন করেছিলেন, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডকে বিনা বাধায় তিনি সুরবাণী সংগীত বিদ্যা নিকেতন এবং রাজধানীতে নক আউট মিউজিকাল ব্যান্ড প্রতিষ্ঠা করেন। নব্বইয়ের দশকে জনপ্রিয় শিল্পী জুয়েলের মৃত্যুর পরে তাঁর স্মৃতিতে জুয়েলের ব্যান্ড গঠন করে তার ভোকাল ছিলেন।

শিশু শিল্পী হিসাবে তোফাসানি প্রতিবছর উপজেলা, জেলা, বিভাগ ও জাতীয় পর্যায়ে গান ও সংগীত প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেছেন।

তোফাসানি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে সাংবাদিকতা শুরু করেছিলেন এবং আজ অবধি সাংবাদিকতা করে আসছেন। তোফাসানি সাটুরিয়া প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। তিনি ২ হাজার সালে সাটুরিয়া প্রেস ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, সেই সময় সাংবাদিকদের সংগঠিত করেছিলেন এতে তাদের সুষ্ঠু ও অবাধ সাংবাদিকতা অনুশীলনের সুযোগ হয়।

১৯৮৯ সালের ২৬ এপ্রিল সাটুরিয়ার বিপর্যয়ী টর্ণেডোতে তিনি গুরুতর আহত হন। এরপর তিনি ঢাকায় বিভিন্ন সংবাদপত্র ও টিভি চ্যানেলগুলির গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ শুরু করেন। একজন সাংস্কৃতিক কর্মী ও সাংবাদিক হিসাবেও ঢাকায় যখেষ্ট সুনামের সাথে কাজ করেন তিনি। ১৯৮৯ সালে বিটিভিতে সংগীত পরিবেশন শুরু করেন। এরপর বেসরকারী একুশে টিভির সম্প্রচারের শুরু থেকে তিনি সেখানে সাংবাদিকতা করেন। একই টিভি চ্যানেলে আবু সাঈদের ওঙ্কার নাটকে অপি করিম, মামুনুর রশীদ, পিযুষ বন্দোপ্যাধ্যায়, আজিজুল হাকিমসহ বিভিন্ন অভিনেতাদের সাথে কাজ শুরু করেন। এরপর তিনি বেসরকারী টিভি চ্যানেলের জন্য নাটক, ডকুমেন্টরীসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান তৈরী করতে থাকেন। দেশের খ্যাতনামা অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নিয়ে তিনি নাটক পরিচালনা করে এসেছেন।

১৯৯৭ সালে, তিনি বিজয় পথ নামে ভিডিও চলচ্চিত্র তৈরি করে অডিও-ভিজ্যুয়াল তৈরি শুরু করেছিলেন। এটি ছিল দেশের প্রথম ভিডিও চলচ্চিত্র।
সেই থেকে তিনি বিভিন্ন অডিও ক্যাসেটের জন্য গান রচনা, সংগীত রচনা, নাটক পরিচালনা, মঞ্চ নাটক পরিচালনা সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। তোফাসানি অসংখ্য ভিডিও চলচ্চিত্র এবং ভিডিও সিডি নির্মান করেছেন।

তোফাসানি একজন সাংবাদিক, একাধারে গীতিকার, সুরকার, নাট্যকার, কণ্ঠশিল্পী, অভিনেতা, নাটকের পরিচালক, চিত্রশিল্পী ও সংগীতশিল্পী। তিনি অসংখ্য নাটক, শর্ট ফিল্ম, টেলিফিল্ম এবং টিভি নাটক রচনা করেছেন। তোফাসানি এক হাজারেরও বেশি গান রচনা ও সুর করেছেন। তিনি মরমী কবি সৈয়দ কালুশাহ ফকিরকে নিয়ে দেশে প্রথম গবেষণা করেন এবং কৃষ্ণ কলো কালুশাহ নামে একটি গবেষণা গ্রন্থ প্রকাশ করেন। তোফাসানির অনেকগুলি নাটক আশির দশক ও নব্বইয়ের দশকে এবং বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে মঞ্চস্থ হয়েছিল।

তিনি বিভিন্ন প্রত্নতত্ত্ব, মাধ্যম, মন্দির, মরমী কবি, আদি সংগীত, ইতিহাস ও ঐতিহ্য, জেলা ও উপজেলা নিয়ে গবেষণা করেছেন। তিনি জাতীয় মাশরুম উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ কেন্দ্রের মিডিয়া অফিসার হিসাবে নৈতিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। যে কারণে মাশরুম দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।

তোফাসানি দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (বিএফডিসি) সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজ করেছিলেন। ২ হাজার সাল থেকে তিনি টিভি বিজ্ঞাপন, টিভি শো, নাটক, টেলিফিল্ম, ডকুমেন্টারি এবং বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের জন্য অনুষ্ঠান তৈরী এবং সম্প্রচারের সাথে যুক্ত ছিলেন। এ পর্যন্ত তোফাসানিকে শতাধিক পদক দেওয়া হয়েছে। তিনি শতাধিক সম্মান, প্রশংসাপত্র এবং সামাজিক সেবার স্বীকৃতি পেয়েছেন।

তৎকালীন চীনা প্রধানমন্ত্রী লি পেং যখন বাংলাদেশ সফর করেছিলেন, তোফাসানি জাতীয় সংসদের উত্তর প্লাজায় নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে চীনা ভাষায় দুটি গান পরিবেশন করেছিলেন। তিনি নব্বইয়ের দশকের শেষের দিকে মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রপতি, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী এবং সেনাবাহিনী প্রধানসহ রাষ্ট্রীয় অতিথির সংবর্ধনায় বিভিন্ন ভাষায় গান গেয়েছিলেন। বিখ্যাত প্রবীণ সংগীত পরিচালক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক, লেখক, সাহিত্যিক এবং গবেষকগণের সংস্পর্শে আসার সুযোগ হয়েছে তার তোফাসানি বিভিন্ন দেশে ভ্রমণ করার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন।

বর্তমানে তোফাসানি সিএনআই নিউজ (সংবাদ সংস্থা), সিএনআই নিউজ ২৪. কম (নিউজ পোর্টাল) এর প্রধান সম্পাদক, জাতীয় সাপ্তাহিক বার্তা বিচিত্রা, ক্রাইম নিউজ ইন্টারন্যাশনাল (প্রাইভেট) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, একতারা টেলিফিল্ম ও সিএনআই অডিও ভিজ্যুয়ালের স্বত্বাধিকারী। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক কল্যাণ গ্রুপের সভাপতি এবং সাটুরিয়া প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য। ঝালক সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ও স্বদেশী শিল্পী গোষ্ঠী এবং জাতীয় মাশরুম উন্নয়ন শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। জাগ্রত সোসাইটি, সাভার, ঢাকা এর যুগ্ম-সচিব । এছাড়াও তিনি সাভার প্রেসক্লাবের সদস্য। অনলাইন মিডিয়া সোসাইটি অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির কেন্দ্রীয় সদস্য।আন্তর্জাতিক সেবা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন অফ ইউএন ভলেন্টিয়ারের সম্মানিত সদস্য, ইউনাইটেড নেশন ভলেন্টিয়ার, রেডক্রস জেনেভার সদস্য, ইন্টারন্যাশনাল মডেল অফ ইউনাইটেড নেশনের এমবাসেডর, ইউএন এসডিজি’র সক্রিয় কর্মী। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক সংগঠনের সাথে জড়িত।

সাংবাদিকদের কল্যাণে সুবিদিত তোফায়েল হোসেন তোফা সানি অসহায় কর্মহীন মানুষ ও ক্ষতিগ্রস্ত পেশাজীবীদের কথা বিবেচনা করে এবারের জন্মদিনটি আনুষ্ঠানিক পালন করা থেকে বিরত থেকেছেন। দুঃসহ করোনাকালে মাহে রমজানে অভুক্ত সেই পরিবার গুলোর পাশে থাকার যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন তিনি।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-১১/১০, ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : বিএনএস সেন্টার (৯তলা), প্লট-৮৭, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited