,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

পুলিশের লাঠিপেটায় বিএনপির সমাবেশ পণ্ড, আটক ৫০

সিএনআই নিউজ:

রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশের আগে ও পরে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আট পুলিশ সদস্যসহ আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। আটক করা হয়েছে অন্তত ৫০ জনকে।

ডিএমপির রমনা জোনের এসি শেখ মো. শামীম সময় সংবাদকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বিএনপির সমাবেশ থেকে ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে যাচাই-বাছাই করে অনেককেই ছেড়ে দেয়া হতে পারে। এ ছাড়া যাদের নামে নির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে তাদের নামে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হবে।

শনিবার (১৩ ফেব্রয়ারি) প্রেসক্লাবের সামনে প্রয়াত প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের প্রস্তাবের প্রতিবাদে এ সমাবেশ ডাকা হয়।

এদিন দুপুর ১২টার দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন যখন বক্তব্য রাখছিলেন, তখন আশপাশে পুলিশের উপস্থিতি দেখে বক্তব্য শেষ হওয়ার আগে ভীত হয়ে সমাবেশস্থল ছেড়ে যেতে থাকেন নেতাকর্মীরা। এ সময় প্রেসক্লাবের ভেতর থেকে বিএনপি কর্মীদের ছুড়ে দেয়া একটি ইটের টুকরা আঘাত করে এক পুলিশ সদস্যের মাথায়। এরপরই শুরু হয় এই ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া আর ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা।

ইটপাটকেল নিক্ষেপের একপর্যায়ে পুলিশ শুরু করে লাঠিচার্জ। খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ অন্যান্য নেতারা প্রবেশ করেন প্রেসক্লাবে। প্রায় আধা ঘণ্টা পর শান্ত হয় পরিস্থিতি।

সকালে সমাবেশ শুরুর আগেও এমন সংঘর্ষ হয়। ১০টায় সমাবেশ শুরুর কথা থাকলেও এর আগেই নেতাকর্মীরা জড়ো হন প্রেসক্লাবের সামনে। এ সময় যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ রাস্তা ছেড়ে দাঁড়ানোর কথা বললে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়।

পুলিশ জানায়, অশান্ত নেতাকর্মীদের শান্ত হতে এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করায় নেতাকর্মীরা তাদের ওপর চাড়াও হয়। আর এতেই পরিস্থিতির অবনতি হয়।

এদিকে ঘটনাস্থল থেকে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে আটকের দাবি করেছে বিএনপি। সংঘর্ষের পর আবারো গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ। বিনা উসকানিতে পুলিশ হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এর আগে সমাবেশে দেওয়া বক্তব্যে আঘাত এলে পাল্টা আঘাত করার জন্য নেতাকর্মীদের প্রস্তুত হওয়ার নির্দেশনা দেন দলের স্থায়ী কমিটির এ সদস্য।

সংঘর্ষের ঘটনায় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য ও বিএনপির নেতাকর্মী আহত হয়েছে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই সমাবেশের আয়োজন করে বিএনপি।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-১১/১০, ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : বিএনএস সেন্টার (৯তলা), প্লট-৮৭, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited