,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

ট্রাম্পকে বিজয়ের শুভেচ্ছা

অনলাইন ডেস্ক :

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট গণনার মধ্যেই নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এদিকে ট্রাম্পকে এরই মধ্যে বিজয়ের শুভেচ্ছা জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছেন মার্কিন ফার্স্টলেডি মেলানিয়ার দেশ স্লোভানিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইয়ানেস জানেসা। যদিও মার্কিন গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, প্রাথমিক পাওয়া ফলাফলে এগিয়ে আছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

স্লোভানিয়ার প্রধানমন্ত্রী এক টুইটে ট্রাম্পকে শুভেচ্ছা জানান। এতে তিনি বলেন, আমেরিকার জনগণ স্পষ্টতই নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং মাইক পেন্সকেই আরও চার বছরের জন্য নির্বাচিত করেছে।

তিনি আরও লেখেন, ফলাফলে দেরি করে ট্রাম্পের বড় ধরনের চূড়ান্ত বিজয়কেই অস্বীকার করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন জানেসা। যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নির্বাচনে শক্তিশালী অবস্থানের জন্য ট্রাম্পের রিপাবলিকান পার্টিকেও তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন। ইউরোপীয় নেতাদের মধ্যে স্লোভেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীই প্রথম ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানালেন।

এদিকে মার্কিন নির্বাচনে হোয়াইট হাউসের ক্ষমতা দখল নিয়ে ট্রাম্প-বাইডেনের মধ্যে তুমুল ভোটের লড়াই চলছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হতে বাইডেনের দরকার ৩২ ইলেকটোরাল ভোট। আর ট্রাম্পের দরকার আরও ৫৭ ভোট। ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেনের ইলেকটোরাল ভোটের সংখ্যা ২৩৮টি। বিপরীতে ট্রাম্পের ২১৩টি।

অ্যারিজোনা, জর্জিয়া, মিশিগান, পেনসালভানিয়া ও উইসকনসিন ব্যাটলগ্রাউন্ডগুলোতে কে জয়ী হন সেটির ওপর নির্ভর করছে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট কে হচ্ছেন। এই ৫টি অঙ্গরাজ্যে ইলেকটোরাল ভোটের সংখ্যা বেশি।

নির্বাচনী ফল বিশ্লেষণে জানা গেছে, বেশিসংখ্যক অঙ্গরাজ্যে জয়ী হয়েছেন ট্রাম্প। কিন্তু সেগুলোতে ইলেকটোরাল ভোট কম। রিপাবলিকান প্রার্থী ২৩টি রাজ্যে বিজয়ী হয়েছেন। যার মধ্যে ফ্লোরিডা, টেক্সাস, ইন্ডিয়ানা, কেন্টাকি, মিসৌরি ও ওহাইও অন্যতম। ২০১৬ সালের নির্বাচনেও এসব রাজ্য দখলে নিয়েছিলেন ট্রাম্প।

বাইডেন ১৮টি রাজ্যে জয়ী হলেও সেগুলোকে ইলেকটোরাল ভোট বেশি। যার মধ্যে ক্যালিফোর্নিয়া, নিউইয়র্ক ও ওয়াশিংটন রয়েছে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটন এসব রাজ্য থেকে জয়ী হয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী, পপুলার ভোটে যে জয়ী হবে তিনি প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন না, যদি না ইলেকটোরাল কলেজ ভোট পক্ষে না থাকে। আগের নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটন সাড়ে ২৯ লাখ ভোট বেশি পেয়েও জয়ী হতে পারেননি ট্রাম্পের সঙ্গে।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-১১/১০, ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : ২১ দক্ষিনখান (শহীদ লতিফ রোড), ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited