,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

সৈয়দপুরে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীতে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ডিলারশীপ বাতিল

আমিরুল হক, নীলফামারী প্রতিনিধি :

নীলফামারীর সৈয়দপুরে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রিতে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ মিলেছে। ইউপি সদস্য ও ডিলার ওই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত বলে তথ্য পাওয়া গেছে। এমন ঘটনায় বোতলাগাড়ি ইউনিয়নের বুড়ির বাজার কেন্দ্রের ডিলার আবু সাঈদ চৌধুরীর ডিলারশীপ বাতিল করা হয়েছে। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের বুড়ির বাজার কেন্দ্রের আওতায় ইউনিয়নের ১নং ও ২নং ওয়ার্ডের ৪৬৮ জন ভোক্তাকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর আওতায় বছরে ৫ বার ৩০ কেজি করে চাল প্রদান করা হয়। যার প্রতি কেজি চালের মূল্য মাত্র ১০ টাকা। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাস থেকে এ পর্যন্ত ৪ বছরে ওই কেন্দ্রের আওতায় ১৯ বার চাল দেয়া হয়েছে। কিন্তু ডিলার আবু সাঈদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তিনি ভোক্তাদের ৩০ কেজির পরিবর্তে ২৫ কেজি করে চাল দিচ্ছেন। এমন অনিয়মের শিকার ৬০ জন ভোক্তা সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেন। এদিকে গত ১২ অক্টোবর চাল বিতরণের সময় ডিলার আবু সাঈদ চৌধুরী ওজনে চাল কম দেয়ার সময় ভোক্তারা মোবাইল ফোনে বিষয়টি খাদ্যবান্ধব কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তদারকি কর্মকর্তা উপজেলা খাদ্য পরিদর্শককে অবহিত করেন। ভোক্তাদের অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিতে উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক নুরে রাহাদ রিমন ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে জনসম্মুখে ৩৬২ ও ৩৬৩ নং কার্ডধারী ভোক্তার চাল ওজন করে ২৫ কেজি চাল পান। অপরদিকে একই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য মোতালেব হোসেন তার মোবাইল নম্বর ব্যাবহার করে ১৯ জনের নামে নিজেই চাল উত্তোলন করে আত্মসাত করেছেন । ৫৮, ২৯৮, ৩২৮, ৩৪৭ ও ৩৫৪ নং কার্ডধারী যথাক্রমে জাহেদুল, আব্দুল খালেক, মজিদুল, অশ্বিনী চন্দ্র শীল ও রনজিৎ চন্দ্র শীল উপজেলা নির্বাহী অফিসারে কাছে এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে। অভিযোগকারি মজিদুল ইসলাম বলেন, কার্ড পেয়ে মাত্র দুইবার চাল উত্তোলন করার পর ওই ইউপি সদস্য কৌশলে আমাদের কাছ থেকে কার্ডগুলো হাতিয়ে নেয়। যা এপর্যন্ত ফেরত পাননি। এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা খাদ্যবান্ধব কমিটির সভাপতি নাসিম আহমেদ জানান, অনিয়মের সত্যতা পাওয়ায় ডিলারশীপ বাতিল হয়েছে। এ ছাড়া ডিলারশীপের জন্য জামানতের ২০ হাজার টাকাও বাতিল করা হয়। তার বিরুদ্ধে সরকারী চাল আত্মসাতের কারনে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়া ওই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ভোক্তাদের অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমানিত হলে তাকেও অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: সি-১১/১০, ছায়াবীথি, সাভার, ঢাকা-১৩৪০
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
ঢাকা অফিস : ২১ দক্ষিনখান (শহীদ লতিফ রোড), ঢাকা-১২৩০
Design & Developed BY PopularITLimited