,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

হাসপাতালেই নেই কোন স্বাস্থ্যবিধি, চোখ রাঙাচ্ছে সংক্রমণের ঝুঁকি

সিএনআই নিউজঃ

কোডিড-বাস্তবতায় দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোয় নতুন চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করা। রোগীর চাপ বাড়ায় শারীরিক দূরত্ব মানার নির্দেশনা কেবল কাগজে-কলমেই সীমাবদ্ধ। মাস্ক ব্যবহারেও অনীহা অনেকের মধ্যে। ফলে হাসপাতালগুলোয় চোখ রাঙাচ্ছে কোভিড সংক্রমণের ঝুঁকি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অবশ্য বলছে, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে বিকল্প উপায়ে বাড়ানো হচ্ছে পরিসর।

কোভিড আতঙ্ক কাটিয়ে হাসপাতালগুলোতে বাড়তে শুরু করেছে রোগী চাপ। তবে মহামারির এই সময়ে সবচেয়ে ঝুকিঁপূর্ণ বলেও বিবেচনা করা হয় হাসপাতাল এলাকা। সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিভিন্ন নির্দেশনা কতটা মানা হচ্ছে কিংবা মানানো হচ্ছে, তা নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন।

ইতিবাচক দিক হলো, সরাসরি চিকিৎসা সেবা পেতে ভয় কাটিয়ে আবারো হাসপাতালমুখী সাধারণ মানুষ। তবে মুদ্রার উল্টো চিত্র হলো, উপচেপড়া ভিড়ে নেই ন্যূনতম দূরত্ব। স্বাস্থ্যবিধির অন্য সব বালাই তো দূরের কথা। গায়ে গা ঘেঁষে যে যেভাবে পারছেন, অপেক্ষায় চিকিৎসকের দুয়ারে। প্রায় সব হাসপাতালেই মোটা দাগে সবখানের চিত্র প্রায় একই।

করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া গাইডলাইনে এক মিটার দূরত্ব নিশ্চিত, সবার মাস্ক ব্যবহার, তাপমাত্রা পরিমাপের মতো বেশ কিছু নির্দেশনা থাকলেও বাস্তব চিত্র ভিন্ন। উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধির কারণে স্বাস্থ্যসেবা নিতে এসে উল্টো বাড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি।

অনেকের যেন আবার হাসপাতালেও মাস্ক পড়তে অনীহা। সে জন্য শেষ নেই অজুহাতেরও। বাহানার

সীমিত স্থানে রোগীর ব্যাপক উপস্থিতি চ্যালেঞ্জের মনে করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও। সেজন্য হাসপাতালের পরিসর বাড়ানোর বিকল্প পরিকল্পনার কথাও জানালেন তারা।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, পাশাপাশি দূরত্বইটাই সেটা আমরা মানাতে পারছি না ভিড়ের কারণে। সে কারণে নতুন আরেকটি কমপ্লেক্স করার চিন্তা করছি।

বিএসএমএমইউ পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল ডা. জুলফিকার আহমেদ আমিন বলেন, ৫ তলা আনসারের জন্য রাখা হয়েছিল। সেখানে তাদের সরিয়ে অন্য কোথাও আবাসন করে অতিরিক্ত জায়গা পাওয়া যেতে পারে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, একই সঙ্গে সচেতন হতে হবে সাধারণ মানুষকেও।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited