,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

স্বামী-স্ত্রী মারামারি, লাঠির আঘাতে ৫ মাসের শিশুর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক, সিএনআই নিউজ: স্বামী ও স্ত্রীর মারামারির জেরে প্রাণ হারাল পাঁচ মাসের একরত্তি শিশু। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব দিল্লির কোন্দলি এলাকায়। অনিচ্ছাকৃত খুনের অভিযোগে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আর তারপর থেকেই পলাতক শিশুটির বাবা। তার সন্ধানে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত রবিবার রাতে আচমকা ২৯ বছরের দীপ্তি আর তাঁর স্বামী ৩২ বছরের সত্যজিতের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। ঝগড়া থেকে লেগে যায় মারামারিও। এর মাঝে পাশে থাকা একটি লাঠি তুলে দীপ্তিকে মারতে থাকে সত্যজিৎ। লাঠিটিতে একটি পেরেক ছিল। স্ত্রীকে মারার সময় হঠাৎ সেটি দীপ্তির কোলে থাকা পাঁচ মাসের সন্তানের মাথায় লাগে। এর জেরে গুরুতর জখম হয় একরত্তি শিশুটি। প্রথমে দীপ্তি ও সত্যজিৎ বাড়িতে প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করে তার। পাশে থাকা একটি সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রেও নিয়ে যায়। কিন্তু, তারপরও সুস্থ হয়নি শিশুটি। উলটে মঙ্গলবার থেকে আরও অবস্থা খারাপ হয় তার শরীরের। ক্রমাগত বমি করতে থাকে। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝতে পেরে সঙ্গে সঙ্গে পূর্ব দিল্লির একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাকে নিয়ে যায় দীপ্তি। সেখানে পৌঁছনোর পর কর্তব্যরত চিকিৎসকরা শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, সজোরে আঘাত লাগার ফলে শিশুটির মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে গিয়েছিল। সময়মতো চিকিৎসা না হওয়ার কারণে পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে গিয়েছিল। এর ফলেই ওই ছোট্ট শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। কোলের সন্তানের মৃত্যুর পরেই বুধবার সত্যজিতের বিরুদ্ধে গাজিপুর থানায় এফআইআর করে দীপ্তি। এর ভিত্তিতে তদন্তও শুরু করে পুলিশ। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

এই ঘটনার প্রেক্ষিতে মানসিক রোগের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। দেব-দেবী থেকে সাধারণ ঘরের কর্তা-গিন্নি, সবার জীবনেই ছোটখাট মনোমালিন্যকে কেন্দ্র করে বচসা হয়েছে। অনেকের মতে, রান্নাঘরে থাকা বাসনেও ঠোকাঠুকি হয়। স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে হওয়া গন্ডগোল অনেকটা সেরকমই। এতে নাকি ভালবাসা আরও বাড়ে! কিন্তু, এই ঝগড়ার জেরে যদি তাদের একরত্তি সন্তানের প্রাণ চলে যায়! তখনও কি একে-অপরের প্রতি ভালবাসা বৃদ্ধি পাবে? না সারাজীবন ধরে আক্ষেপ ও আফশোসের করাল অন্ধকারে অতিবাহিত হবে তাদের জীবন।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited