,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যা বললেন

অনলাইন ডেস্ক, সিএনআই নিউজ: কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে চাইলে করতে পারে, তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকেলে গণভবনে শেখ হাসিনা তার সাম্প্রতিক ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি সফর সম্পর্কে জানাতে এক সাংবাদিকের প্রশ্নে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোন দল আমাদের সহযোগী সংগঠন, সেটা আমাদের গঠনতন্ত্র রয়েছে। কিন্তু কোনো অঙ্গ-সংগঠন আমাদের নেই। ছাত্রলীগ আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠন না। ছাত্র সংগঠন সমস্ত আলাদা সংঘটন, সেভাবে আছে। ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ হওয়ার কথা বলেছেন, এই দেশে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে ছাত্ররাজনীতি অবদান রয়েছে। একটা সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটেছে। অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ রয়েছে। বুয়েট যদি মনে করে, তাহলে নিষিদ্ধ করে দিতে পারি; এটা তাদের উপর।

তিনি আরো বলেন, কিন্তু ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করে দিতে হবে, এটা মিলিটারি ডিকটেরদের কথা। তারাই এসে-তো পলিটিক্স ব্যান্ড, স্টুডেন্টস পলিটিক্স ব্যান্ড করে গেছেন। আমাদের দেশে নেতৃত্ব তৈরি হয়েছে ছাত্ররাজনীতি থেকে। আমি ছাত্ররাজনীতি করে এখানে এসেছি। এজন্য আমরা দেশের জন্য কাজ করতে পারি। যারা উড়ে এসে বসে, তারা ক্ষমতাটাকে উপভোগ করতে আসে। তাদের কাছে ওই ধরনের চিন্তাভাবনা থাকে না। রাজনীতি একটা শিক্ষার ব্যাপার, ট্রেনিংয়ের ব্যাপার, এটা ছাত্ররাজনীতি থেকে গড়ে ওঠে। তার মন-মানসিকতা গড়ে উঠবে। কিন্তু আমাদের দেশে অসুবিধা হলো বার বার মিলিটারিরা ক্ষমতা এসেছে মানুষের চরিত্র হরণ করেছে, তাদের লোভী করে দিয়েছে। নানা ধরনের ভোগবিলাসের পথ দেখি গেছে। যেটা নষ্ট রাজনীতি হয়ে গেছে। সেখান থেকে ধীরে ধীরে ফিরিয়ে নিয়ে আসছি। একটা ঘটনা ঘটেছে বলে নিষিদ্ধ করতে হবে? যদি কোন প্রতিষ্ঠান করতে চায়, সেটা করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েরে সম্পর্কে একটা কথা বলতে চাই। একেকটা ছেলে-মেয়ের পিছনে, যারা পড়াশুনা করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বলেন, বুয়েট বলেন তাদের স্বায়ত্তশাসনও দেওয়া আছে আবার খরচও সরকারকে বহন করতে হয়। এবং মোটা টাকা, একেকটা ছাত্রের পিছনে কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করতে হয়। সেই হিসাবটা কেউ করে না।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited