,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

পৃথিবীকে বাঁচাতে একদিন পরপর মলত্যাগ!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : পৃথিবীকে বাঁচানোর উপায় হিসাবে মানুষকে একদিন পর পর মলত্যাগ করার পরামর্শ দিয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারো। এক সাংবাদিক তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, কিভাবে পরিবেশকে রক্ষা করে কৃষির উন্নয়ন করা যায়। জবাবে এমন মন্তব্য করেছেন তিনি। 

জানা গেছে, একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে ওই সাংবাদিক বলেন, এই গ্রহে গ্রিনহাউজ প্রভাবের এক চতুর্থাংশের জন্য দায়ী বন উজাড় ও কৃষিক্ষেত্র। প্রতিক্রিয়ায় বলসোনারো মন্তব্য করেন, খানিকটা কম খাওয়া এক্ষেত্রে যথেষ্ট। আপনি পরিবেশ দূষণের বিষয়ে কথা বলছেন তো? সেক্ষেত্রে একদিন পর পর মলত্যাগ করলেই হবে। এটি পুরো বিশ্বের জন্যই ভালো হবে।সম্প্রতি ব্রাজিলের সরকারি তথ্যে উঠে আসে যে, অ্যামাজনে বন উজাড় হয়ে যাওয়া ঘটনা বেড়ে গেছে। আর এ তথ্য উঠে আসার পর বলসোনারো তোপের মুখে পড়েন। যে সংস্থাটি এই বন উজাড় বেড়ে যাওয়ার বিষয়টি সামনে এনেছিলেন বলসোনারো সেই সংস্থার প্রধানকে বরখাস্ত করেন।  
বলসোনারোর অভিযোগ, ওই ব্যক্তি সমস্যার পরিধি সম্পর্কে মিথ্যা বলেছে।

এদিকে, বিজ্ঞানীরা বলছেন, বলসোনারো জানুয়ারিতে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে অ্যামাজন ক্রমান্বয়ে ক্ষতির মুখোমুখি হচ্ছে। কারণ তার সরকার যে নীতি নিয়েছে সেগুলোতে পরিবেশ সংরক্ষণের চাইতে উন্নয়নকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বেশি।

ব্রাজিলের মহাকাশ সংস্থার তথ্য থেকে দেখা গেছে, গত বছরের জুনে অ্যামাজনে যে পরিমাণ বনভূমি ধ্বংস করা হতো, এ বছরের জুনে – অর্থাৎ পুরো এক বছরের মাথায় – এই বন উজাড়ের হার ৮৮% বৃদ্ধি পেয়েছে।প্রসঙ্গত, বিশ্বের বৃহত্তম রেইনফরেস্ট হিসাবে অ্যামাজন একটি গুরুত্বপূর্ণ কার্বনের ক্ষেত্রে যা বৈশ্বিক উষ্ণায়নের গতি কমাতে সাহায্য করে।
সরকারি পরিসংখ্যানগুলো বলছে, অ্যামাজনে গাছ কাটার সবচেয়ে বড় কারণ গবাদি পশুর জন্য নতুন চারণভূমি তৈরি করা।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited