,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

পুলিশকর্মীর সঙ্গে পরকীয়া, স্ত্রীর বিয়ে দিয়ে দিলেন যুবক

সিএনআই নিউজ :    গোপনে প্রেম চলছিল বেশ কয়েকদিন ধরেই। স্থানীয়দের তৎপরতায় শেষপর্যন্ত স্ত্রী ও তাঁর প্রেমিককে হাতনাতে ধরে ফেললেন এক ব্যক্তি। এমনকী, দু’জনের বিয়েও দিয়ে দিলেন তিনি! ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুরের বংশীহারি এলাকায়। ওই গৃহবধূর প্রেমিক আবার পেশায় পুলিশকর্মী। বংশীহারি এলাকাতেই বাড়ি। তবে কর্মসূত্রে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের কসবা এলাকায় থাকেন পেশায় পুলিশকর্মী গৌতম সরকার। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ফেসবুক মারফত বংশীহারি এলাকারই এক গৃহবধূর সঙ্গে আলাপ হয় গৌতমের। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই দু’জনে মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এমনকী, স্বামীর অনুপস্থিতিতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাড়িতেও আসতেন ওই পুলিশকর্মী। স্থানীয়দের অনুমান, তাঁদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও ছিল।  বৃহস্পতিবার দুপুরে যথারীতি স্বামীর অনুপস্থিতিতে ওই গৃহবধূর বাড়িতে আসেন তাঁর প্রেমিক। ঘটনাটি নজরে পড়ে যায় স্থানীয় বাসিন্দাদের। ঘরের ভিতরে যখন দু’জনে গল্প করছিলেন, তখন বাইরে থেকে তালা দিয়ে ওই গৃহবধূর স্বামীকে খবর দেন পাড়া-প্রতিবেশীরা। কিছুক্ষণ বাদে বাড়ি ফিরে স্ত্রীকে প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন তিনি। এদিকে ততক্ষণে এই ঘটনার খবর চাউর হয়ে গিয়েছে এলাকায়। ওই গৃহবধূ ও তাঁর প্রেমিককে ঘিরে রীতিমতো বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। পুলিশ তাঁদের উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় বাসিন্দারা বাধা দেন। এরপরই নিজে দাঁড়িয়ে থেকে স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর প্রেমিকের বিয়ে দিয়ে দেন ওই গৃহবধূর স্বামী। প্রথমে রাজি না হলেও শেষপর্যন্ত পুলিশের গাড়িতে বসেই ওই গৃহবধূর সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেন পেশায় পুলিশকর্মী গৌতম হালদার। নবদম্পতিকে নিয়ে থানায় চলে যায় পুলিশ। জানা গিয়েছে, ওই গৃহবধূর প্রথম স্বামী পেশায় টোটোচালক। ওই দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে। কিন্তু, ওই মহিলা যে বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন, তা আগেই টের পেয়েছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের দাবি, স্বামীর অনুপস্থিতিতে প্রায়ই ওই গৃহবধূর বাড়িতে আসতেন তাঁর প্রেমিক গৌতম। কিন্তু ওই গৃহবধূর স্বামী দু’জনের বিয়ে দিয়ে দেওয়ায় হতবাক স্থানীয় বাসিন্দারা।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited