,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

নদী পথে সাভার-আশুলিয়া-ধামরাইয়ে মাদকের সাতটি ট্রানজিট পয়েন্ট!

ফাইল ছবি

বিশেষ প্রতিবেদক :


রাজধানীর উপকন্ঠ সাভার, আশুলিয়া ও ধামরাইয়ে নদী পথে সাতটি মাদক চোরাচালানের ট্রানজিট পয়েন্টে নামছে মাদকের বড় চালান। নদী তীরবর্তী এলাকায় কৌশলে মাদক ব্যবসায়ীরা বছরের পর বছর এসব ট্রানজিট পয়েন্ট পাচারের রুট হিসেবে ব্যবহার করে আসছে বলে সূত্র জানায়। পুলিশী তৎপরতার কারনে মাদক পাচারকারীরা পরিবর্তন করছে তাদের নৌ রুট।
সূত্র জানায়, ঢাকার বংশী নদীর সিঙ্গাইর ব্রীজ, সাভার ও আশুলিয়ার তুরাগ নদীর বিরুলিয়া, আমিনবাজার, বড়দেশী, আশুলিয়া ঘাট, আশুলিয়ার নয়ারহাট ঘাট, ধামরাইয়ের ইসলামপুর এলাকার নদী পথে গড়ে উঠেছে প্রায় সাতটি মাদক পাচারের ট্রানজিট পয়েন্ট।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীরা জানান, মাদকের গডফাদার ও চিহ্নিত ব্যবসায়ীরা আত্মগোপনে থেকে নৌপথে মাদকের বড় চালান নিয়ে আসে এসব ট্রানজিট পয়েন্টে। এরপর এসব পয়েন্ট থেকেই ছোট ছোট চালান পাচার করা হয় বিভিন্ন এলাকায়। নদী পথে মাদক পাচারকে নিরাপদ মনে করে মাদক ব্যবসায়ীরা। মোবাইল ফোনে সাংকেতিক ভাষায় সক্রিয় থাকে নেটওয়ার্ক। নদী পথে সুবিধাজনক স্থানে মাদকের চালান নেমে তা তীরবর্তী এলাকা অথবা নৌপথেই চলে যাচ্ছে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে।
এসব ট্রানজিট পয়েন্ট থেকে নৌ পথে মাদক পাচার হচ্ছে পুরান ঢাকার শ্যামপুর, সূত্রাপুর এলাকায়, বুড়িগঙ্গার তীরে, সোয়ারীঘাট এলাকায়, লালবাগ, উত্তরা, দক্ষিণখান, কেরানীগঞ্জ, সাভার, টঙ্গী, নারায়ণগঞ্জের বন্দর, ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায়। পুরান ঢাকার সোয়ারীঘাট ও মিটফোর্ট হাসপাতাল এলাকা থেকে নৌকায় চড়ে কেরানীগঞ্জ ও সাভারের পয়েন্টে আসে মাদক পাচারকারীরা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে তারা নৌপথে অভিনব কৌশল বেছে নিয়েছে।
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিজাউল হক দিপু বলেন, নয়ারহাটে এ ধরনের ট্রানজিট পয়েন্ট নেই। নদী পথে মাদক পাচার রোধে পুলিশ বিশেষ নজরদারী গ্রহন করেছে।
সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সায়েদ জানান, নদীপথ সুরক্ষায় বর্তমানে নৌপুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। এরপরেও থানা পুলিশ এসব বিষয়ে বিশেষ নজরদারী রেখেছে।
ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিপক সাহা বলেন, নদী পথে মাদক পাচারের কোন তথ্য ধামরাই থানায় নেই। তবে, নদী তীরবর্তী এলাকাগুলো থেকে বিভিন্ন সময় মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করছে পুলিশ।
এ ব্যাপারে সাভারের আমিন বাজার নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর দিদারুল আলম বলেন, নৌপথে এখন আর মাদক পাচার সম্ভব নয়। নৌ পুলিশ এ ব্যাপারে তৎপর রয়েছে। তবে, বিভিন্ন সময় পুলিশী তৎপরতার কারনে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের রুট পরিবর্তন করে থাকে। #

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited