,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

কমিশনার মিনার বিরুদ্ধে সাভার থানায় জিডি করেছে ডাব বিক্রেতা

নাহিদ আহমেদ :
সাভার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে মিনা কমিশনারের বিরুদ্ধে থানায় জিডি (সাধারণ ডায়রী) করেছেন দরিদ্র ডাব বিক্রেতা আব্দুল হাই। পুলিশ জিডির সূত্র ধরে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করছে বলে জানিয়েছেন সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সাঈদ। গত বৃহষ্পতিবার রাতে সাভারের নয়াবাড়ি মোড়ে এক ডাব বিত্রেতাকে মারধোরের ঘটনায় আজ এ জিডি করা হয়েছে বলে সূত্র জানায়।
উল্লেখ্য,- নয়াবাড়ি মোড়ে ডাব বিক্রি করে সংসার চালায় মাদারীপুরের সিড়াইল গ্রামের আছিলুদ্দিনের ছেলে আব্দুল হাই (৬০)। তার মেয়ের জামাই কবির হোসেন বিদেশে লোক পাঠানোর কথা বলে কাউন্সিলর মিনহাজুর রহমান মিনার আত্মীয় বারেকের কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা নিয়ে তার গর্ভবতী মেয়েকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আব্দুল হাইকে ধরে এনে গত ২২ এপ্রিল মিনা বিচার করেন তার জামসিংয়ের অফিসে। আব্দুল হাইকে দায়ী করে দেড় লাখ টাকা দিতে রায় দেয়া হয় বিচারে। দরিদ্র ডাব বিক্রেতা আব্দুল হাই কাউন্সিলর ও প্রভাবশালীদের ভয়ে দেড় লাখ টাকা দিতে তিন মাসের সময় চান। এ সময় দিতে নারাজ কাউন্সিলর মিনা। গত বুধবার দুপুরের দিকে এই ঘটনার জের ধরে কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মিনা নয়াবাড়ি মোড়ে আব্দুল হাইয়ের ডাব বিক্রির দোকানে গিয়ে তাকে লাথি মেরে ফেলে দেয়। এ সময় ডাব কাটার দা দিয়ে তাকে জবাই করতে উদ্দ্যত হয় মিনা। মার ফেরাতে এলে আরো কয়েকজনের উপর চড়াও হয় কাউন্সিলর।
এর কয়েকদিন আগে মিনা তার অফিসে আটকে রেখে হকিস্টিক দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিতে চায় আব্দুল হাইয়ের। এমনকি একটি সাদা দলিলে স্বাক্ষর নেন তিনি।
এসব ঘটনায় দরিদ্র ডাব বিক্রেতা ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।
অবশেষে, আজ (শনিবার) সাভার মডেল থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সাঈদের কাছে গিয়ে ঘটনা সম্পর্কে বলেন আব্দুল হাই ও তার স্ত্রী। প্রাথমিকভাবে একটি জিডি (সাধারণ ডায়রী) করে তা তদন্তপূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করতে নির্দেশ দিয়েছেন ওসি সাঈদ।
এদিকে ঘটনাটি নিয়ে এরআগে বিভিন্ন মাধ্যমে সংবাদ পরিবেশিত হয়। এরপর ঐদিন সংবাদ পরিবেশনের স্বার্থে মিনহাজ উদ্দিন মোল্লা মিনা’র মোবাইল ফোনে তাকে না পাওয়া গেলেও তিনি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন যে, তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তার স্ট্যাটাস থেকে আরো জানা গিয়েছে যে, তিনি এ ব্যাপারে ডাব বিক্রেতাকে নিয়ে বিচার করেছেন এবং বিদেশে লোক পাঠানোর ব্যাপারে আব্দুল হাইয়ের সাথে তার লেনদেন রয়েছে।
অপরদিকে, নয়াবাড়ি এলাকায় প্রায় অর্ধশত প্রত্যক্ষদর্শী মারধোরের ঘটনা সম্পর্কে বলেন এ প্রতিনিধিকে। স্থানীয়রা জানান, যে কোন ঘটনাই হোক না কেন, এভাবে একজন রোজাদারকে মারা তার ঠিক হয়নি।
সিএনআই নিউজের প্রধান সম্পাদক ও বার্তা বিচিত্রা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক তোফায়েল হোসেন তোফাসানি বলেন, কোন সংবাদের ব্যাপারে ঐ পত্রিকা বা অনলাইনে প্রতিবাদ প্রকাশ করার নিয়ম আছে। অথচ মিনহাজ উদ্দিন মোল্লা একটি অনলাইনে প্রতিবাদ জানিয়ে তা সংবাদ আকারে নিয়ে এসেছেন। তিন মাসে ৫০ হাজার করে দেড় লাখ টাকা পাওনা আছে বলে ফেসবুক স্ট্যাটাস এবং নিউজে উল্লেখ আছে। এতে করে আব্দুল হাইয়ের সাথে তার লেনদেন সংক্রান্ত জটিলতারই প্রমান মেলে।
তিনি আরো জানান, দরিদ্র আব্দুল হাই তার স্বাক্ষর দেয়া সাদা স্ট্যাম্পের একটি কপি দিয়েছেন। যাতে উল্লেখ রয়েছে ২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা পাওনা আছেন বিদেশগামীরা। সাদা স্ট্যাম্পে পরবর্তীতে লিখে টাকার অঙ্ক বাড়ানো হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন আব্দুল হাই।
সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সাঈদ বলেন, ঘটনা তদন্ত করে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তদন্ত শেষে প্রতিবেদন কোর্টে প্রেরণ করে আদালতের দারস্থ করা হবে দায়ীদের।
কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মিনা আজ (শনিবার) বলেন, লোকটি আরিচা রোডে ডাব বিক্রি করতে চেয়েছিল। আমি বাধা দেই এবং ধাক্কা দিয়ে তার ডাবের গাড়ি ফেলে দিই। এ ছাড়াও আব্দুল হাই আদম ব্যবসায়ী বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited