,
প্রচ্ছদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | সারাদেশ | রাজনীতি | বিনোদন | খেলাধুলা | ফিচার | অপরাধ | অর্থনীতি | ধর্ম | তথ্য প্রযুক্তি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | স্বাস্থ্য | নারী ও শিশু | সাক্ষাতকার

২৭ দিন পর শেকলে বাঁধা মুন্নিকে উদ্ধার

DSC_0000023নজরুল ইসলাম খান, সাভার: তালাক দেয়া স্বামীর ঘরে ২৭ দিন শেকলে বাঁধা অবস্থায় অমানবিক জীবন-যাপনের পর আজ (শুক্রবার) দুপুরে তাকে উদ্ধার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। ঘটনাস্থল সাভারের জামসিং এলাকা। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে। পলাতক রয়েছে আরো তিনজন অভিযুক্ত।
পুলিশ জানায়, প্রায় ২৭ দিন আগে দুই সন্তানের জননী ও স্থানীয় মজিবর রহমানের মেয়ে মাহফুজা আক্তার মুন্নি (৩৯) কে তার তালাকপ্রাপ্ত স্বামী ও মৃত সাগর আলীর ছেলে সোলেমান মিয়া (৪৮) এবং ছেলে মিরাজ (২৬) সহ প্রায় ১০-১২ জন লোক সাভারের জয়পাড়া জামসিং এলাকায় মুন্নির বাবার বাড়ি থেকে রাত প্রায় ১২ টার দিকে তাকে অপহরণ করে সোলেমানের বাড়ি নিয়ে আসে। সেখানে মুন্নিকে বারান্দার একটি ছোট ঘরে খুঁটির সাথে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়। এ অবস্থায় খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ কৌশল অবলম্বন করে আজ দুপুরে অভিযান পরিচালনা করে মুন্নিকে উদ্ধার করে। এ সময় মুন্নির ছেলে মিরাজ ও দেবর আলেক (৩৫)কে পুলিশ গ্রেফতার করে। ঘটনার সাথে জড়িত স্বামী সোলেমান, মুন্নির প্রেমিক সোলেমান (৩৮), ননদ হাসিনা (৩৩) পলাতক রয়েছে।
মুন্নি জানায়, ১৯৯৪ সালে একই এলাকার সোলেমানের সাথে তার বিয়ে হয়। তাদের ছেলে মিরাজ ও মেয়ে মার্জিয়াকে নিয়ে স্বামীর ঘরে বসবাস করে আসছিল। সে মাশরুম চাষ করে সংসারের খরচ চালাতো। কিন্তু স্বামীর নির্মম অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যায়। প্রায় তিন বছর আগে সোলেমান তাকে গরম পানি দিয়ে শরীর পুড়িয়ে দেয়। প্47144746_220908242155023_4471693818567065600_nরায় আড়াই বছর আগে লোহার সাবল দিয়ে মুন্নির বাম হাত ভেঙ্গে দেয় স্বামী। এমন অত্যাচারের কারনে প্রায় দুই বছর আগে স্বামীকে ডিভোর্স দেয় সে। এরপর কিছুদিন আগে সোলেমান নামে আরেক ছেলেকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করে মুন্নি। এই সোলেমানের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর উপজেলার জিয়নপুর গ্রামে। তার বাবার নাম আব্দুর রাজ্জাক। এ ঘটনায় ক্ষ্রিপ্ত হয়ে স্বামী সোলেমান ও ছেলে মিরাজ প্রেমিক সোলেমানের সাথে পরিকল্পনা করে মুন্নিকে অপহরণ করে ঘরে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখে।
রমিজা নামে মুন্নির এক বান্ধবী জানান, বেড়াতে গিয়ে মুন্নিকে শেকল বাঁধা অবস্থায় দেখতে পাই। এরপর ঘটনাটি সিএনআই নিউজের প্রধান সম্পাদক তোফাসানিকে জানাই। তিনি কৌশলে পুলিশ নিয়ে মুন্নিকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে।
20181130_140751সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আওয়াল জানান, এমন অমানবিক ঘটনা জানার পর সকল গোপনীয়তা রক্ষা করে থানার ওসি তদন্ত শওকতুল ও এসআই সেলিম রেজাসহ সঙ্গীয় ফোর্স ও সংবাদকর্মীদের সাথে নিয়ে শেকল বাঁধা অবস্থায় মুন্নিকে উদ্ধার করি। এই উদ্ধারের মধ্য দিয়ে মানবাধিকার লংঘনের মত ঘটনার অবসান হয়েছে বলে তিনি মনে করেন। #

Leave a Reply

VIDEO_EDITING_AD_CNI_NEWS
প্রধান সম্পাদক : তোফায়েল হোসেন তোফাসানি
বার্তা সম্পাদক : রোমানা রুমি, ৫৭, সুলতান মার্কেট (তয় তলা), দক্ষিনখান, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন ও ফ্যাক্স : ০২-৭৭৪১৯৭১, মোবাইল ফোন : ০১৭১১০৭০৯৩১
ই-মেইল : cninewsdesk24@gmail.com, cninews10@gmail.com
আঞ্চলিক অফিস : সি-১১/১৪, আমতলা মোড়, ছায়াবিথি, সোবহানবাগ, সাভার, ঢাকা।
Design & Developed BY PopularITLimited